Friday, November 11, 2016

পার্বতীপুরে মধ্যপাড়া গ্রামে স্বামীর দেওয়া বিষ খেয়ে স্ত্রীর মৃত্যু

রাইসুল ইসলাম, পার্বতীপুর (দিনাজপুর)
দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলার ১০নং হরিরামপুর ইউনিয়নের পাতরাপাড়া গ্রামে স্বামীর দেওয়া বিষ খেয়ে স্ত্রীর মৃত্যু ঘটেছে। এ ঘটনায় পার্বতীপুর মডেল থানায় একটি ইউডি মামলা হয়েছে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে। 
জানাগেছে, পার্বতীপুর উপজেলার হরিরামপুর ইউনিয়নের খাগড়াবন (মধ্যপাড়া) গ্রামের মৃত সাদেক আলীর পুত্র মোঃ রফিকুল ইসলামের সাথে একই উপজেলার হামিদপুর ইউনিয়নের বৈদ্যনাথপুর (পাতরাপাড়া) গ্রামের বড়পুকুরিয়া দাখিল মাদ্রাসার মৌলভী শিক্ষক মোঃ মকছেদ আলীর দ্বিতীয় মেয়ে মোছাঃ মৌসুমি বানুর (২০) বিয়ে হয় গত ৪ বছর আগে। এ বিয়েতে যৌতুক হিসেবে নগদ ৭লাখ টাকা দিয়ে জামাইকে একটি মাদ্রাসায় একটি চাকুরী নিয়ে দেওয়া হয়। কিন্তু বিয়ের পর থেকেই স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে প্রায় ঝগড়া বিবাদ লেগে থাকতো বলে জানাযায়।
নিহতের মৌসুমীর বাবা অভিযোগ করেন তার মেয়েকে জামাই অসুস্থতার সুযোগে ওষুধের পরিবর্তে বিষ খাইয়ে হত্যা করেছে। এব্যপারে মৌসুমীর স্বামী রফিকুল ইসলামের বক্তব্য জানার জন্য তার মোবাইলে একাধিকবার চেষ্টা করা হয়েছে। তার মোবাইল বন্ধ থাকায় বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি। 
এ বিষয়ে নিহত মৌসুমীর ছোট ভাই রেজওয়ানুল হক বাদী হয়ে পাবর্তীপুর মডেল থানায় একটি ইউডি মামলা দায়ের করেন আজ বৃহস্পতিবার (মামলা নং-৩৬)। অপরদিকে এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, মৌসুমীর স্বামী রফিকুল ইসলাম তার নিজ এলাকার পূর্ব রসুলপুর গ্রামে দ্বিতীয় বিয়ে করেছেন। এ বিষয়ে বড়পুকুরিয়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ এস আই ফেরদৌস আলম বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে বিষ ক্রিয়ায় তার মৃত্যু হয়েছে।

শেয়ার করুন

0 facebook: