Friday, May 17, 2019

জনগনের প্রার্থী হিসাবে হিসাবে পাড়া মহলায় হাট বাজার ও বাড়ী বাড়ী গিয়ে প্রচারনা চালাচ্ছেন চেয়ারম্যান প্রার্থী হক


মাসুদ রেজা শিশির 

আগামী ১৮জুন শেষ ধাপ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে এ নির্বাচনে রাজবাড়ী জেলার একমাত্র কালুখালী উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এ নির্বাচনে উপজেলা চেয়ারম্যান পদে জনসাধারনের প্রার্থী হচ্ছেন  বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় অর্থ ও পরিকল্পনা কমিটির সদস্য, দৈনিক জনতার আদালত পত্রিকার সম্পাদক সময়ের সাহসী রাজনিতি বিদ নুরে আলম সিদ্দিকী হক। এ জন্য তিনি দীর্ঘদিন ধরেই তার নির্বাচনী এলাকার বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষকে সাথে নিয়ে গণসংযোগ করে চলেছেন। তৃনমুলে পৌঁছে দিচ্ছেন বর্তমান সরকারের সাফল্যের বার্তা। এ নির্বাচনে ইতি মধ্যে নূরে আলম সিদ্দিকি হকের পক্ষে তৃণমূলের নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষ মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। এদিকে নূরে আলম সিদ্দিকি হক উপজেলার প্রতিটি এলাকার পাড়া মহলা,হাট বাজার এমনকি সাধারণ ভোটারদের বাড়ী বাড়ী গিয়ে প্রচার প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছেন। ইতি মধ্যে তৃণমূল মানুষের পছন্দের প্রার্থীর তালিকায় নূরে আলম সিদ্দিকী হক স্থান করে নিয়েছেন। সদাহাজ্জউল এই রাজনিতিবিদ গ্রামের খেটে খাওয়া মানুষদের ভাগ্যের উন্নয়নের লক্ষ নিয়ে মাঠে ময়দানে কাজ করে চলছেন বলে জানান চেয়ারম্যান প্রার্থী। অসাম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী এই নেতা সমাজ উন্নয়নে ব্যক্তিগত তহবিল থেকে আর্থিক সাহায্য দিয়ে চলেছেন সাধ্যমত। অনেক প্রতিবন্ধী ও দুস্থদের আর্থিক সহযোগিতা করে আসছেন নিয়মিত। শিক্ষার মান প্রসারেও রেখে চলেছেন প্রসংসনীয় ভূমিকা। নিজ এলাকায় প্রতিষ্ঠা করেছেন । মৃগী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি তিনি। শতবর্ষী রাজবাড়ী পাবলিক লাইব্রেরির নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদকও তিনি। দৈনিক জনতার আদালত পত্রিকার সম্পাদক নুরে আলম সিদ্দিকী হক কালুখালীর রাজনীতির মাঠে সাহসী ও ষ্পষ্টবাদী নেতা হিসাবে সকল শ্রেনীর মানুষের কাছে বেশ জনপ্রিয়। প্রথম ২০১১ সালে অনুষ্টিত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে তৃনমুল আওয়ামীলীগের ভোটে দলীয় চেয়ারম্যান প্রার্থী মনোনীত হলেও তার বিরুদ্ধে তিনজন বিদ্রোহী প্রার্থী দাড় করানো হয় ফলে দলীয় প্রার্থী হয়েও ষড়যন্ত্রের কারনে তিনি সামান্য ভোটে পাজিত হন। পরবর্তীতে ২০১৪ সালে কালুখালী উপজেলা পরিষদে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করে নিকটতম প্রতিদ্বন্দি হলেও রাজনীতির অঙ্গনে ব্যাপক সাড়া ফেলতে সক্ষম হয়েছিল হক। নুরে আলম সিদ্দিকী হক বলেন, আমি আওয়ামীলীগের নির্যাতিত, নিপীড়িত, বঞ্চিত নেতাকর্মীদের পাশে রয়েছি। সাধ্যমতো চেষ্টা করছি এলাকার মানুষের সুখ-দুঃখের সাথী হওয়ার। তৃণমূলের মানুষের প্রতি আমার আস্থা রয়েছে বিগত কালুখালী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনই তার জলন্ত প্রমাণ। তৃণমূলের নেতাকর্মীদের মতামতের ভিত্তিতে দলকে গতিশীল এবং জননেত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মানের লক্ষ্যে ও কালুখালী উপজেলাকে একটি আধুনিক উপজেলায় রুপান্তি করার মানষিকতা নিয়েই গরীব,দুঃখী খেটে খাওয়া মানুষ গুলোর সাথে নিয়েই আমি নির্বাচনের মাঠে নেমেছি। নুরে আলম সিদ্দিকী হক কালুখালী উপজেলার সর্বস্তরের মানুষের দোয়া ও সমর্থন কামনা করেন। 


শেয়ার করুন

0 facebook: