Tuesday, September 8, 2020

এতিম বিদ্যাপীঠের পরিচালক সোহেল মারুফ স্বপনের আহবান



জাতীয় দিবসের এক অনুষ্ঠানে এমপি মহোদয় এর হাত থেকে পুরস্কার নিচ্ছেন স্কুলের পরিচালক, শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা           

  জনস্রোত রিপোট।। 


 এতিম বিদ্যাপীঠ নিয়ে ফেসবুকে  লেখা নিয়ে বর্তমান পরিচালক সোহেল মারুফ স্বপন  (ভিিপি স্বপন) বিদ্যালয়টির প্রতিষঠাতা পরিচালক মরহুম ডাঃ সাইফুল ইসলামের নাম অন্তর্ভুক্তিি ও তার নামে একটি স্মৃতি ফলক নির্মানের বিনীত অনুরোধ জানান। তিনি সাশা করেন এটি করলে বর্তমান সরকারের ভাবমূর্তি অারো বাড়বে।তিনি প্রত্যাশা করেন স্হানীয় সরকার ও জনপ্রতিনিধিরা মরহুম ডাঃ সাইফুল ইসলামের স্মৃতি রক্ষার্থে বিচখ্খনতার পরিচয় দিবেন।       

             ফেসবুকে তার মন্তব্য প্রকাশ করতে গিয়ে বলেন  - এই পোস্টটি অনেক  স্মৃতি মনে করিয়ে দেয়, মনে করিয়ে দেয় তিরস্কার এর কথা, মনে করিয়ে দেয় বাহাবার কথা, মনে করিয়ে দেয় সাফল্যের কথা, মনে করিয়ে দেয় আনন্দের অশ্রুর কথা। আমার সেজো ভাই মরহুম ডা: সাইফুল ইসলাম তার উদ্যোগে সকলের প্রচেষ্টায় আজকের এই পার্বতীপর এতিম বিদ্যাপীঠ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।



ধিক্কার জানাই হীন রাজনীতিকে, ডাক্তার সাইফুল জীবিত থাকা অবস্থায় এই প্রতিষ্ঠান থেকে, যাকে বিচ্ছিন্ন করা হয়, তার নাম মুছে ফেলার সকল কলাকৌশল গ্রহণ করেছে, তার মৃত্যুর পর, কোনরকম দোয়া মাহফিলের আয়োজন না করে, তারা ছোট মনের পরিচয় দিয়েছে। অথচ আমরা এখনও খ্যাত অখ্যাত যারা প্রতিষ্ঠানের সদস্য তাদের নামে দোয়া মাহফিল করে থাকি।

প্রতিষ্ঠাতা কে অস্বীকার করলে, সেকার ওপর দাঁড়িয়ে আছে, আমি তাদেরকে প্রশ্ন করলাম।

রাজনীতিরাজনীতির জায়গায়, পার্বতীপুরে উন্নয়নে আমরা সবাই এক জায়গায়।

মাননীয় সংসদ সদস্য, মাননীয় উপজেলা চেয়ারম্যান, মাননীয় শিক্ষা অফিসার, ও বর্তমান এই প্রতিষ্ঠানের কমিটি ও শিক্ষকদের নিকট আবেদন থাকবে ভুল পথ পরিহার করে, সঠিক পথে এসে, ডাক্তার সাইফুল ইসলামের নাম প্রতিষ্ঠানে অন্তর্ভুক্ত করুন, এতে আপনাদের সম্মান বৃদ্ধি পাবে বলে মনে করি। পরিশেষে বলবো সরকার বাহাদুর আপনাদেরকে যথেষ্ট সহযোগিতা করছে, অতএব হেলাফেলা না করে শিক্ষার মান উন্নয়নে অবদান রাখুন,আমি বিশ্বাস করি আপনারা চেষ্টা করলে এই প্রতিষ্ঠানটি পার্বতীপুর উপজেলার শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান হিসেবে বিবেচিত হবে।


          


শেয়ার করুন

0 facebook: