Tuesday, July 17, 2018

পাংশায় আনন্দমুখর পরিবেশে শ্রীশ্রী জগন্নাথদেবের রথযাত্রা উৎসব পালিত

পাংশায় আনন্দমুখর পরিবেশে শ্রীশ্রী জগন্নাথদেবের রথযাত্রা উৎসব পালিত



মাসুদ রেজা শিশির

 রাজবাড়ীর পাংশায় সনাতন ধর্মাবলম্বীদের ঐতিহ্যবাহী অন্যতম একটি ধর্মীয় উৎসব শ্রীশ্রী জগন্নাথদেবের রথযাত্রা উৎসব-২০১৮ আনন্দমুখর পরিবেশের মধ্য দিয়ে পালিত হয়েছে। প্রতিবছর আষাঢ় মাসের শুক্লাপক্ষের দ্বিতীয়া তিথিতে পালন করা হয় এই উৎসব। কথিত আছে, এ তিথিতে শ্রীশ্রী জগন্নাথদেব, তার ভাই শ্রীশ্রী বলভদ্র (বলরাম) ও বোন শ্রীশ্রী সুভদ্রা দেবীকে সাথে নিয়ে পুরীধামের মন্দির থেকে গুন্ডিচা মন্দিরে যান। গুন্ডিচা মন্দিরে নয়দিন অবস্থান করে আবার পুরীধামে ফিরে আসেন। পুরীধামের শ্রীশ্রী জগন্নাথদেবের রথযাত্রার মাধ্যমেই যুগ যুগ ধরে চলছে রথযাত্রা উৎসব। এরই ধারাবাহিকতায় সারা বিশ্বেই সনাতন ধর্মাবলম্বীরা পালন করে আসছে রথযাত্রা উৎসব। রথযাত্রা উপলক্ষে বিভিন্ন স্থানে ধর্মীয় অনুষ্ঠানের পাশাপাশি বসবে ঐতিহ্যবাহী রথমেলা। সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বিশ্বাস জগন্নাথদেব হলেন জগতের নাথ বা অধীশ্বর। জগত হচ্ছে বিশ্ব আর নাথ হচ্ছেন ঈশ্বর। তাই জগন্নাথ হচ্ছেন জগতের ঈশ্বর। তার অনুগ্রহ পেলে মানুষের মুক্তিলাভ হয়। জীবরূপে তাকে আর জন্ম নিতে হয় না। এ বিশ্বাস থেকেই রথের ওপর জগন্নাথ দেবের প্রতিমা রেখে রথযাত্রা করেন সনাতন ধর্মাবলম্বীরা।
রথযাত্রা উপলক্ষে পূজা অর্চনায় আরতী, হরিনাম সংকীর্ত্তন, মহাপ্রসাদ বিতরণ, হরিলুট, ভক্তিমূলক সঙ্গীতসহ নানা আচার অনুষ্ঠান হয়ে থাকে। সেই সাথে পুণ্যার্থীরা দেবদেবীকে প্রণাম নিবেদনের পাশাপাশি বিশ্বশান্তি কামনায় সমবেত হন। শ্রীশ্রী জগন্নাথদেবের রথযাত্রা উৎসব উপলক্ষে গতকাল শনিবার পাংশা রথযাত্রা উৎসব পরিচালনা কমিটির আয়োজনে পাংশা আদি মহাশ্মশান প্রাঙ্গণে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় পাংশা উপজেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি সুব্রত কুমার দাস (সাগর) এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যাপক মোঃ ফরিদ হাসান (ওদুদ)। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, পাংশা পৌরসভার মেয়র আব্দুল-আল মাসুদ, বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রীস্টান ঐক্য পরিষদের পাংশা উপজেলা সভাপতি ও রাজবাড়ী জেলা পরিষদ সদস্য উত্তম কুমার কুন্ডু, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোস্তফা মাহমুদ হেনা মুন্সী, বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রীস্টান ঐক্য পরিষদের পাংশা উপজেলা সাধারণ সম্পাদক দিবালোক কুন্ডু (জীবন), পাংশ আদি মহাশ্মশান কমিটির সভাপতি ও পাংশা উপজেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদের প্রধান উপদেষ্টা অনিল কুমার বিশ্বাস, ব্যাংক এশিয়ার পাংশা শাখা ব্যবস্থাপক মোঃ মনিরুল ইসলাম, উপজেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক নির্মল কুমার কুন্ডু, পাংশা পৌর পূজা উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি সুব্রত কুমার দে, এয়াকুব আলী চৌধুরী বিদ্যাপীঠের সাবেক প্রধান শিক্ষক সুশীল কুমার মুদী প্রমুখ। এছাড়াও পাংশা উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের পূজা উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকগণ উপস্থিত ছিলেন।
আলোচনা শেষে পাংশা আদি মহাশ্মশান প্রাঙ্গণ থেকে রথ টেনে থেকে হাজার হাজার সনাতন ধর্মাবলম্বীরা পাংশা পুরাতন বাজারস্থ শ্রীশ্রী রাধাগোবিন্দ মন্দির প্রাঙ্গণ পর্যন্ত অংশগ্রহণ করে। রথযাত্রা উপলক্ষে ভক্ত পুণ্যার্থীদের নিরাপত্তা বিধানে পাংশা মডেল থানা পুলিশের বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছিল চোখে পড়ার মত। নয়দিন পর সমাপনী দিন পালন করা হবে উল্টো (ফিরতি) রথযাত্রা।


শেয়ার করুন

0 facebook: